স্বাস্থ্য

ভাইরাসজনিত শ্বসনতন্ত্রের সংক্রমণ ও কুলজম (Kulzam)


যে ভাইরাস সমূহ আমাদের শ্বসনতন্ত্রকে আক্রমন করে, সেগুলো থেকে সুরক্ষা পাওয়ার জন্য বিশেষজ্ঞগণ গরম পানির বাষ্প নাক-মুখ দিয়ে টানা অথবা গরম পানি দিয়ে কুলকুচি করার কথা বলে থাকেন।

কুলজম (Kulzam) প্রাকৃতিক উপাদানে প্রস্তুত হামদর্দের এন্টিসেপ্টিক ও প্রদাহনাশক। গরম পানির সাথে কুলজম যুক্ত করে তার বাষ্প নাক-মুখ দিয়ে টানলে অথবা কুলজম মিশ্রিত গরম পানি দিয়ে কুলকুচা করলে শ্বসনতন্ত্রের ভাইরাসজনিত সংক্রমনের বিরুদ্ধে সুরক্ষা পাওয়া যায়।

কুলজমে রয়েছে ক্যামফোর (Camphor), থাইমল (Thymol), ম্যানথল (Menthol), ইউক্যালিপটাস ওয়েল (Eucalyptus oil), পাইন ওয়েল (Pine oil) সহ বেশ কিছু উদ্ভিজ উপাদান। ক্যামফোরের জীবানুনাশক, প্রদাহনাশক, ব্যথানাশক এবং এলার্জী প্রশমন করার সক্ষমতা WHO এর Monograph উল্লেখ করা আছে। একাধিক ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে দেখা গেছে শ্বসনতন্ত্রের আবদ্ধতা (congestion) দূর করে কাশি এবং শ্বাসকষ্ট কমাতে ক্যামফোরের সক্ষমতা প্রমাণিত। কুলজমের অন্য উপাদান ইউক্যালিপটাস ওয়েলও শ্বসনতন্ত্রের আবদ্ধতা দূর করতে এবং কাশি কমাতে একইরকম কার্যকরী।

তাই কুলজম মিশ্রিত গরম পানির বাষ্প নাক-মুখ দিয়ে টানলে অথবা কুলজম মিশ্রিত গরম পানি দিয়ে কুলকুচি করলে শ্বসনতন্ত্রের সংক্রমনের ঝুকি কমবে এবং শ্বসনতন্ত্রের সংক্রমণজনিত যে উপসর্গগুলো আছে, সেগুলো উপশম হবে।

শ্বসনতন্ত্রের সুরক্ষা এবং উপসর্গ নিরাময়ের জন্য কুলজমের ব্যবহারবিধিঃ আধা লিটার (৫০০ মিলি) গরম পানিতে ৪/৫ ফোটা কুলজম যোগ করে সেই গরম পানির বাস্প নাক-মুখ দিয়ে টানতে হবে, একইভাবে কুলজম মিশ্রিত গরম পানি দিয়ে কুলকুচিও করা যায়।

কুলজমের অন্য উপাদানের মধ্যে থাইমলের রয়েছে শক্তিশালী জীবাণুনাশক সক্ষমতা, ম্যানথলের রয়েছে ব্যথা ও ত্বকের এলার্জী দূর করার ক্ষমতা এবং পাইন ওয়েলের রয়েছে প্রদাহনাশক ও জীবানুনাশক গুনাবলী।

কুলজমে বিদ্যমান একাধিক মেডিসিনাল প্ল্যান্ট এবং তাদের নানামুখী কার্যকারিতার কারনে কুলজমের কার্যকারিতার মধ্যে আরো রয়েছে-

• মাথা ব্যথা, দাত ব্যথা, পোকাড় কামড়, কাটা স্থান – আক্রান্ত স্থানে কয়েক ফোটা কুলজম তুলায় লাগিয়ে ব্যবহার করতে হবে।

• কোমরে ব্যথা, জয়েন্টের ব্যথা – আক্রান্ত স্থানে হালকা ভাবে কুলজম মালিশ করতে হবে

• নাকের রক্তপাত – ২ ফোঁটা তিলের তৈল (sesame oil) বা নারিকেল তৈলের সাথে ২ ফোঁটা কুলজম মিশিয়ে নাকে ব্যবহার করতে হবে।

উপস্থাপনাঃ কুলজম আরক তরল অবস্থায় ১৫ মিলি প্লাস্টিক ড্রপারে পাওয়া যায়।

সতর্কতাঃ কুলজম মূলত বাহ্যিক ব্যবহারের জন্য। বিশেষ কিছু ক্ষেত্রে চিকিৎসকের পরামর্শে ৩/৪ ফোটা কুলজম পানিতে দ্রবীভূত করে সেবন করা যাবে।


Promote your Company or BusinessAdvertise with us

আপনার প্রতিষ্ঠান বা ব্যবসায়ের প্রচার বা প্রসার করতে চান? দেশের জনপ্রিয় অনলাইন সংবাদ মাধ্যম ডেইজ বুলেটিন আপনার সেবায় নিয়োজিত। লক্ষ লক্ষ পাঠকের কাছে আপনার বিজ্ঞাপনটি পৌঁছে যাবে মুহূর্তেই।