নারায়ণগঞ্জ

১০ গ্রামের মানুষের দীর্ঘ ৪০ বছরের দাবী পূরন করলেন সাংসদ খোকা


নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার সনমান্দী ও জামপুর ইউনিয়নের মধ্যবর্তী ব্রহ্মপুত্র নদে নির্মিত স্বপ্নের হরিহরদী ব্রীজ শুভ উদ্বোধনের অপেক্ষায়।উল্লেখ্য, পূর্বের সকল সংসদ সদস্য, মন্ত্রীসহ দশ গ্রামের মানুষকে বারবার প্রতিশ্রুতি দিলেও তা আর আলোর মুখ দেখেনি।তবে সনমান্দি ও জামপুর ইউনিয়নের দশ গ্রামের হাজার হাজার মানুষের দীর্ঘ ৪০ বছরের সেই দাবী পূরন করলেন নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় পার্টির অতিরিক্ত মহাসচিব লিয়াকত হোসেন খোকা।

জামপুর ইউনিয়নের মুছারচর, চরতালিমাবাদ, রাজাপুর ও সনমান্দী ইউনিয়নের দড়িকান্দি, হরিহরদী, টেমদী, বিজয়নগর, আলমদী, দক্ষিণপাড়া, মুসুরদী, আটিবাড়ি, খৈতেরগাঁও, ছনকান্দা, দড়িকান্দী, লেদামদী, সনমান্দী, ফতেপুর, ফতেপুর দড়িকান্দী, গাঙ্গুলকান্দী, নোয়াকান্দীসহ ৪০ গ্রামের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের চলাচলের একমাত্র ভরসা ছিল বাঁশের সাঁকো,আর বর্ষা মৌসুমে চলে নৌকা।

বর্ষা মৌসুমে নৌকা দিয়ে পার হতে গিয়ে নৌকা ডুবে ঘটছে হতাহতের ঘটনাও। এতে এলাকাবাসীর দাবির প্রেক্ষিতে ২০১৮ সালের ৫ই মে ব্রীজটির নির্মান কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন সাংসদ খোকা।

উপজেলার সনমান্দি ইউনিয়নের হরিহরদি গ্রাম আর জামপুর ইউনিয়নের মুছারচর গ্রামের মাঝখানে ব্রহ্মপুত্র নদীতে ৬ কোটি ১ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মিত এই ব্রীজটির নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এল জি ইডি) কর্তৃক নির্মিত আই,আর,ডিপি-2 প্রকল্পের আওতায় এই কাজটি বাস্তবায়ন করেন পিপিএল-কিউসি(জেভি)পূরঃকৌশল নামের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। সোনারগাঁ উপজেলা প্রকৌশল অধিদপ্তর সূত্র জানায়, ব্রীজের নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ,রং এর কাজ ও এপ্রোসের কাজ সম্পন্ন হলে এমপি মহোদয়ের সাথে আলাপ করে উদ্বোধনের তারিখ জানিয়ে দেওয়া হবে।