গাইবান্ধা

সুন্দরগঞ্জে রাস্তা সংস্কারে চমক


গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ছাপড়হাটি ইউনিয়নের দক্ষিণ মরুয়াদহ মন্ডরেরহাট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ননী গোপালের বাড়ি পর্যন্ত কাঁচা রাস্তা পূণঃসংস্কারে নির্ধারিত পরিসীমাতিরিক্ত কাজ করে চমক দেখিয়েছেন প্রকল্প সভাপতি সুবোধ চন্দ্র বর্মন।

স্থানীয়রা জানান, চলতি ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে উক্ত জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটির পুনঃসংস্কারের জন্য ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি’র পক্ষ থেকে কাজের বিনিময় খাদ্য কর্মসূচী (কাবিখা) প্রকল্পের অধীনে ৮ মেট্রিকটন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়। প্রকল্প সভাপতি উক্ত ছাপড়হাটি ইউনিয়ন জাতীয় কৃষক পার্টির সেক্রেটারী সুবোধ চন্দ্র বর্মন নির্ধারিত পরিসীমাতিরিক্ত কাজ করে স্থানীয়দের মাঝে চমক সৃষ্টি করায় তিনি এখন আলোচিত ব্যক্তি।

এ ব্যাপারে সুবোধ চন্দ্র বর্মন বলেন, দক্ষিণ মরুয়াদহ মন্ডলের হাট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ননী গোপালের বাড়ি পর্যন্ত ২ হাজার ৩’শ ফুট দৈর্ঘ্য এ রাস্তাটির প্রকল্প নির্ধারিত পরিসীমা ছিল ২ হাজার ২’শ ফুট, প্রস্থে ১৩ ফুটের স্থলে নির্ধারন ছিল ১২ ফুট। আর উচ্চতা ১ ফুটের স্থলে দেড় ফুট বিশিষ্ট্য মাটি কাটা হয়েছে। যা দৈর্ঘ্য ১’শ, প্রস্থ ১ ফুট ও উচ্চতা ৬ ইঞ্চি বেশী করে কাজ করে প্রকল্পটি বাস্তাবায়ন করেছেন।

তিনি আরও জানান, জনগুরুত্বপূর্ণ এ রাস্তাটি বিগত দিনে পুনঃসংস্কারের উদ্যোগ না নেয়ায় অনেক গর্তের সৃষ্টি হয়েছিল। ফলে পথচারীদের চলাচলে অযোগ্য হয়ে পরেছিল। নির্ধারিত বরাদ্দে অতিরিক্ত পরিমাণে কাজ করেও প্রকল্প বাস্তবায়নে কোন লোকসান হয়নি। তাই তিনি এ ধরণের প্রকল্প বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে সকলের প্রতি উদাত্ব আহ্বান জানান।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তাবায়ন অফিস সূত্র জানায়, রাস্তাটির পুনঃসংস্কার কাজে নির্ধারিত পরিসীমাতিরিক্ত কাজ হয়েছে। তাই, প্রকল্প বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কমিটি যদি মনে করেন রাষ্ট্রের অর্থে নিজের কাজ করছি। তাহলে প্রত্যেকটি প্রকল্প বাস্তবায়নে যথার্থতা শতভাগ নিশ্চিত বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।