চাকরি

বিশ্ববিদ্যালয়গুলো ভর্তি পরীক্ষা নিলে তারপর বিসিএস

  • 2
    Shares

করোনার মধ্যেই ৪২ ও ৪৩তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ সরকারি কর্মকমিশন (পিএসসি)। অথচ ৪০ ও ৪১তম বিসিএসের কার্যক্রম এখনো শেষ হয়নি। ফলে চারটি বিসিএসসহ পিএসসির অধীন নিয়োগ পরীক্ষা কবে হবে, তা নিয়ে উদ্বেগে রয়েছেন চাকরিপ্রার্থীরা।

এ বিষয়ে পিএসসির চেয়ারম্যান মো. সোহরাব হোসাইন বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতির মধ্যে খাতাপত্র আনা – নেয়ার সমস্যার কারণে ফল প্রকাশে দেরি হচ্ছে। করোনার কারণে ৪১তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষাও আটকে আছে। আমরা অপেক্ষা করছি, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ভর্তি পরীক্ষার জন্য। তারা যদি পরীক্ষা নেয়, আমরাও পরীক্ষা নিয়ে নেব।’

৪০তম বিসিএসের খাতা দেখা শেষ পর্যায়ে। এখন তৃতীয় পরীক্ষকের লিখিত পরীক্ষার খাতা দেখা বাকি আছে। প্রয়োজন না হলে আমরা তৃতীয় পরীক্ষক পর্যন্ত যাব না এবার।

চাকরীপ্রত্যাশীরা জানান, ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে ৪০তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। আর গত বছরের মে মাসে ৪০তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। বিসিএসে প্রার্থী ছিলেন চার লাখ ১২ হাজার ৫৩২ জনের বেশি। প্রিলিমিনারিতে উত্তীর্ণ হন ২০ হাজার ২৭৭ জন।

পিএসসি সূত্র জানায়, পরীক্ষা আয়োজনে অনেক কিছু নির্ভর করছে করোনার ওপর। এখন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর পরীক্ষার দিকে নজর রাখছে পিএসসি কর্তৃপক্ষ। এ পরীক্ষা হলে পিএসসিও বিসিএসসহ গুরুত্বপূর্ণ সব পরীক্ষা নেয়ার প্রস্তুতি নেবে। এছাড়া শিগগিরই করোনার ভ্যাকসিন চলে আসবে বলে তারা মনে করছেন। এ পরীক্ষা শুরু হলে নিয়োগ পরীক্ষার জট দূর হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা। চলতি ডিসেম্বর মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে জরুরি সভায় বসবে পিএসসি। সভায় ৪০তম বিসিএসের ফলাফল ঘোষণার বিষয়টি চূড়ান্ত করা হবে।সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল

 


  • 2
    Shares