শীর্ষ সংবাদস্বাস্থ্য

পরীক্ষামূলক প্রয়োগের জন্য ভ্যাকসিন উৎপাদনের অনুমতি পেল গ্লোব বায়োটেক


ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের (পরীক্ষামূলক প্রয়োগ) জন্য প্রয়োজনীয় ভ্যাকসিন উৎপাদনের অনুমতি পেয়েছে বাংলাদেশের গ্লোব বায়োটেক লিমিটেড।

বুধবার গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন গ্লোব বায়োটেক লিমিটেডের রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ইনচার্জ ড. আসিফ মাহমুদ। তিনি জানান, গত ২৮ ডিসেম্বর তাদের এই অনুমতি দেওয়া হয়।

ড. আসিফ মাহমুদ বলেন, ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের জন্য আমরা ভ্যাকসিন উৎপাদনের লাইসেন্স পেয়েছি। এখন আগামী সপ্তাহে আমরা ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের জন্য বাংলাদেশ চিকিৎসা গবেষণা পরিষদে (বিএমআরসি) প্রটোকল জমা দেব। এরপর ট্রায়াল শুরু করা হবে।

তিনি আশা প্রকাশ করেন, চলতি জানুয়ারি মাসেই গ্লোবের ভ্যাকসিন ‘বঙ্গভ্যাক্স’-এর ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু করা সম্ভব হবে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৩ জুলাই তেজগাঁওয়ে গ্লোব ফার্মাসিউটিক্যালসের প্রধান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে করোনার ভ্যাকসিন তৈরির ঘোষণা দেয় গ্লোব বায়োটেক লিমিটেড। পরে ১০ অক্টোবর সংবাদ সম্মেলন করে গ্লোবের পক্ষ থেকে জানানো হয়, তাদের সম্ভাব্য ভ্যাকসিন ইঁদুরের ওপর প্রয়োগ করে কার্যকর ও সম্পূর্ণ নিরাপদ প্রমাণিত হয়েছে।

শুরুতে তাদের ভ্যাকসিনের নাম ‘ব্যানকোভিড’ থাকলেও ডিসেম্বরে সেটি পরিবর্তন করে ‘বঙ্গভ্যাক্স’ রাখে করোনার ভ্যাকসিন তৈরির চেষ্টায় থাকা একমাত্র বাংলাদেশি কোম্পানিটি।