রাজনীতি

গুম হওয়া পরিবারের জন্য বাজেটে বরাদ্দের দাবী জাতীয় মানবাধিকার সমিতির


সরকারের ব্যর্থতার কারণে গুম হওয়া মানুষের পরিবারগুলো আজ মানবেতর জীবন-যাপন করছে। তারা জীবনযুদ্ধে বিপর্যস্থ। ফলে গুম হওয়া মানুষগুলোর সন্তানরা অর্থের অভাবে ঠিকমত লেখাপড়াও করতে পারছে না। এই অবস্থায় তাদের জীবন পরিচালনার জন্য রাষ্ট্রকেই উদ্যোগ গ্রহন করা উচিত। তাই তাদের জন্য বাজেটে বিশেষ বরাদ্দের দাবী জানিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতি।

সোমবার (৩১ মে) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে সংগঠনের চেয়ারম্যান মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, মহাসচিব এডভোকেট সাইফুল ইসলাম সেকুল ও সাংগঠনিক সম্পাদক লায়ন আল আমিন।

তারা বলেন, একটি পরিবারের একজন মানুষ গুম হয়ে গেলে পুরো পরিবারই বিপর্যস্থ হয়ে পরে। পরিবারের সদস্যরা পথ চেয়ে থাকে তার ফিরে আসার। গুম হওয়া ব্যাক্তির স্ত্রী, সন্তানরা প্রতিনিয়ত পথ চেয়ে থাকে ফিরে আসবে তার স্বামী বা বাবা। বৃদ্ধ পিতা-মাতা সন্তানদের অপেক্ষা করতে করতে চলে গেছেন পরপারে। অনেক আছেন বিছানায়। তাদের চিকিৎসা করার অর্থও আজ অনেক পরিবারের নিকট নাই।

নেতৃবৃন্দ বলেন, গুম হওয়া মানুষদের খুজে বের করে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেয়া রাষ্ট্র ও সরকারের দায়িত্ব হলেও এ ক্ষেত্রে কেন জানি তারা একেবারেই নিরব। আজ এই অসহায় পরিবারের কান্না থামছে না। তাদের অসহায়ত্ব লাঘবে রাষ্ট্রের উচিত তাদের পাশে দাড়ানো। তাদের অসুস্থ পিতা-মাতা, স্ত্রী-সন্তানদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করা, শিক্ষার ব্যবস্থা করা। করোনা কালিন এই বিপর্যয়ের মধ্যে তাদের অসহায় পরিবারের পাশে দাড়াতে আসন্ন বাজেটে বিশেষ বরাদ্দ প্রদান করা উচিত।


Promote your Company or BusinessAdvertise with us

আপনার প্রতিষ্ঠান বা ব্যবসায়ের প্রচার বা প্রসার করতে চান? দেশের জনপ্রিয় অনলাইন সংবাদ মাধ্যম ডেইজ বুলেটিন আপনার সেবায় নিয়োজিত। লক্ষ লক্ষ পাঠকের কাছে আপনার বিজ্ঞাপনটি পৌঁছে যাবে মুহূর্তেই।